স্বাস্থ্যবিধি না মানলে ভ্রাম্যমান আদালতে শাস্তি

0
14

আগামী রোববার থেকে মহামারী করোনাভাইরাস মোকাবেলায় স্বাস্থ্যবিধি মানাতে পরিচালনা করা হবে ভ্রাম্যমাণ আদালত। যদি স্বাস্থ্যবিধি না মেনে চলা ফেরা করে হয় তাহলে শাস্তি দেবে ওই আদালত। এজন্য স্বরাষ্ট্রমন্ত্রণালয় সব আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে নির্দেশ দিয়েছে স্থানীয় প্রশাসনকে মোবাইল কোর্ট পরিচালনার জন্য যথোপযুক্ত সহযোগিতা করার।

স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের উপসচিব আব্দুল জলিল স্বাক্ষরিত এক চিঠিতে শনিবার ৩০ মে এ নির্দেশনা দেয়া হয়।

চিঠিতে বলা হয়, পুলিশ, বিজিবি, কোস্টগার্ডসহ জননিরাপত্তা বিভাগের আওতাধীন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর প্রত্যেক সদস্যকে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জারি করা করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্য ও বিধিসমূহ কঠোরভাবে প্রতিপালন করা এবং মোবাইল কোর্ট আইন-২০০৯ অনুযায়ী সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন-২০১৮ অনুযায়ী মোবাইল কোর্ট পরিচালনায় স্থানীয় প্রশাসনকে সহায়তা দেওয়ার লক্ষ্যে নির্দেশনা দিতে নির্দেশক্রমে অনুরোধ করা হলো।

চিঠিতে আরও বলা হয়, সংক্রামক রোগ (প্রতিরোধ নিয়ন্ত্রণ ও নির্মূল) আইন-২০১৮ অনুযায়ী করোনাভাইরাস প্রতিরোধে সরকারের জারি করা স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত নির্দেশনাগুলো দেশের প্রতিটি নাগরিকের জন্য প্রতিপালন ও অনুসরণ করা বাধ্যতামূলক। স্বাস্থ্যবিধি সংক্রান্ত সরকারি নির্দেশনা অনুসরণ বা প্রতিপালন না করা উক্ত আইনের অধীনে দণ্ডনীয় অপরাধ। জননিরাপত্তা বিভাগের আওতাধীন আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সকল সদস্যদের করোনাভাইরাস প্রতিরোধে স্বাস্থ্যসেবা বিভাগের জারি করা স্বাস্থ্যবিধি যেমন সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ, হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার, সাবান পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধোয়া, দায়িত্ব পালনকালে এবং ঘর থেকে বের হলে মাস্ক পরিধান করাও সর্বসাধারণের জন্য বাধ্যতামূলকভাবে।

চিঠিতে উল্লেখ করা হয়, দেশব্যাপী করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাব এবং ব্যাপক বিস্তার রোধে সব পর্যায়ের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতে স্বাস্থ্য বিভাগের ১১ মে’র স্মারকে ১৩টি এবং ২৫ মে’র স্মারকে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের আবাসিক স্থাপনায় সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি পালনের লক্ষ্যে দু’টি নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে। মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের ২৮ মে স্মারকে ৩১ মে থেকে ১৫ জুন পর্যন্ত সময়ের জন্য ১৫টি শর্তসাপেক্ষে সার্বিক কার্যাবলী চলাচলে নিষেধাজ্ঞার মেয়াদ বাড়ানো হয়েছে। তাছাড়া জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের ২৮ মে’র প্রজ্ঞাপনে শর্তসাপেক্ষে দেশের সার্বিক কার্যাবলী এবং জনসাধারণের চলাচলে নিষেধাজ্ঞা আরোপ বা সীমিতকরণ করা হয়েছে।

স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ ও মন্ত্রিপরিষদ বিভাগের পত্রসমূহ এবং জনপ্রশাসন মন্ত্রণালয়ের প্রজ্ঞাপনে কর্মকর্তা-কর্মচারীদের স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণের জন্য সর্বাবস্থায় মাস্ক পরিধানসহ স্বাস্থ্য বিভাগের জারি করা ১৩ দফা নির্দেশনা কঠোরভাবে অনুসরণের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

করোনাভাইরাস প্রতিরোধে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর সদস্যদের আবাসিক স্থাপনায় সামাজিক দূরত্ব ও স্বাস্থ্যবিধি পালনের লক্ষ্যে এক সদস্য থেকে অন্য সদস্যদের কমপক্ষে ৪ থেকে ৬ ফুট দূরত্ব বজায় রাখা, সাবান পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড ধরে হাত ধোয়া, প্রয়োজনবোধে হ্যান্ড স্যানিটাইজার ব্যবহার করাসহ অন্যান্য স্বাস্থ্যবিধি নিশ্চিতকরণের জন্য স্বাস্থ্য সেবা বিভাগ থেকে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here