সৈয়দপুরে দেওয়াল চাপায় দুই নারী গুরুতর আহত

0
12

মিজানুর রহমান মিলন
সৈয়দপুর প্রতিনিধি:
—————————
নীলফামারীর সৈয়দপুরে কালবৈশাখী ঝড়ের কবলে পড়ে রেলওয়ের একটি বাংলোর সীমানা প্রাচীর (দেওয়াল) চাপায় দুই নারী গুরুতর আহত হয়েছেন। আজ মঙ্গলবার দুপুর ২টার দিকে শহরের বাঙ্গালীপুর নিজপাড়া সবুজ সংঘ মাঠের পশ্চিম প্রান্তে দেওয়াল চাপার ওই ঘটনা ঘটে। আহতরা হলেন ওই এলাকার মো. রুহুল আমিনের স্ত্রী শাহানা বেগম (৬৫) ও আব্দুল রাজ্জাকের স্ত্রী মনোয়ারা বেগম মনু (৪৭)। এদের মধ্যে গুরুতর আহত মনোয়ারা বেগম মনুকে উন্নত চিকিৎসার জন্য রংপুর মেডিকাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করা হয়েছে। অপর আহত শাহানা বেগম সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

জানা গেছে, আজ মঙ্গলবার দুপুর আনুমানিক পৌণে ২টার দিকে আকস্মিক বৈশাখী ঝড়ো হাওয়া ও বৃষ্টি শুরু হয়। এ সময় গৃহবধূ শাহানা বেগম ও মনোয়ারা বেগম মনু তাদের বাড়ির পাশে সবুজ সংঘ মাঠের পশ্চিমে ঝড়ে ভেঙ্গে পড়া গাছের খড়ি সংগ্রহ করছিলেন। এ সময় প্রবলবেগে ঝড়ের কারণে রেলওয়ের পাঁচ নম্বর বাংলোর পূর্ব দিকের প্রায় ৬০ ফুট সীমানা প্রাচীর (দেওয়াল) আকস্মিক ধসে পড়ে। এতে গৃহবধূ শাহানা বেগম ও মনোয়ারা বেগম মনু দেওয়ালে নিচে চাপা পড়েন। পরে দেওয়াল ধসে পড়ার শব্দ পেয়ে আশপাশের লোকজন দ্রুত ঘটনাস্থলে ছুঁটে এসে তাদের উদ্ধার করে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে নিয়ে যান।

সেখানে গৃহবধূ মনোয়ারা বেগম মনুর অবস্থা গুরুতর হলে সেখানকার দায়িত্বরত চিকিৎসক তাকে রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে প্রেরণ করেন। তাঁর অবস্থা আশঙ্কাজনক বলে জানা গেছে। তবে আহত গৃহবধূ শাহানা বেগম সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন। সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের একটি সূত্র জানায়, দেওয়াল চাপায় গৃহবধূ মনোয়ার বেগম মনু কপালে মারাত্মক জখমপ্রাপ্ত হয়েছেন। আর গৃহবধূ শাহানা বেগম শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাতপ্রাপ্ত হন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here