ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড সৈয়দপুর শাখার ৬ কর্মকর্তা করোনা আক্রান্ত ১৩ বাড়ি লকডাউন

0
7

মিজানুর রহমান মিলন সৈয়দপুর প্রতিনিধি:

নীলফামারী জেলার সৈয়দপুরে ইসলামী ব্যাংকে কর্মরত ৬ কর্মকর্তা করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। এদের মধ্যে সৈয়দপুর ও রংপুরে দুইজন করে এবং নীলফামারী ও পাবর্তীপুরে একজন করে বসবাস করেন। করোনায় আক্রান্ত সৈয়দপুরে বসবাসকারী দুই কর্মকর্তাকে আজ রবিবার দুপুরে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে। এছাড়া সৈয়দপুর শহরে যেসব এলাকায় ওই দুই কর্মকর্তা বসবাস করেন সেই এলাকার পাঁচটি বাড়িতে থাকা ১৩ টি পরিবারকে লকডাউন করা হয়েছে।ঘনবসতিপূর্ণ বাণিজ্যিক শহর সৈয়দপুরের ওই বাণিজ্যিক ব্যাংকের ৬ কর্মকর্তা করোনা আক্রান্তের ঘটনায় শহরে বসবাসকারী মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক দেখা দিয়েছে। জানা গেছে, সম্প্রতি ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেড সৈয়দপুর শাখার ১১ কর্মকর্তার মধ্যে করোনা ভাইরাসের উপসর্গ জ্বর, সর্দি, কাশি দেখা দেয়।

এ অবস্থায় গত ২৯ এপ্রিল ব্যাংকের শাখাটি লকডাউন করে সকল প্রকার কার্যক্রম বন্ধ ঘোষণা করে কৃর্তপক্ষ। পরে করোনা উপসর্গ দেখা দেওয়া কর্মকর্তাদের মধ্যে প্রথমে রংপুরে বসবাস করা তিন জনের শরীর থেকে নমুনা নেওয়া হয়। রংপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পরীক্ষায় এদের মধ্যে দুইজনের করোনা পজিটিভ আসে। পরবর্তীতে গত ২৯ এপ্রিল নীলফামারী ও সৈয়দপুর উপজেলা স্বাস্থ্য দপ্তর থেকে আরো চারজনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম. এ. রহিম মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। করোনা পরীক্ষায় গতকাল শনিবার তাদেরও পজিটিভ আসে। আক্রান্ত এসব কর্মকর্তার মধ্যে ১ জন করে নীলফামারী ও পার্বতীপুরে এবং ২ জন সৈয়দপুরে বসবাস করেন। গতকাল শনিবার রাতে করোনা পজিটিভ ফলাফল আসার পরেই সৈয়দপুর উপজেলা প্রশাসনের পক্ষ থেকে উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার সৈয়দপুরে বসবাসকারী দুই কর্মকর্তার ভাড়া বাসাসহ আশপাশের ৫টি বাড়িতে থাকা ১৩টি পরিবারকে লকডাউন করেন। সৈয়দপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকারের নেতৃত্বে পৌর কাউন্সিলর এরশাদ হোসেন পাপ্পু ও মো. শাহিনুর ইসলাম মিঠু এবং থানা পুলিশের উপস্থিতিতে ওই বাড়িগুলো লকডাউন করা হয়েছে। এছাড়াও করোনায় আক্রান্ত সৈয়দপুরে অবস্থানকারী দুই কর্মকর্তাকে আজ রোববার দুপুরে সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয়েছে।

বাণিজ্যিক শহর সৈয়দপুরের ইসলামী ব্যাংকের শাখায় ৬ জন কর্মকর্তা করোনা আক্রান্তের ঘটনায় গোটা শহরের মানুষের মধ্যে চরম আতঙ্ক দেখা দিয়েছে।সৈয়দপুর ১০০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) ডা. মো. আরিফুল হক সোহেল করোনা আক্রান্ত ইসলামী ব্যাংকের দুই কর্মকর্তাকে হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তির বিষয়টি নিশ্চিত করেন।

সৈয়দপুর উপজেলা সহকারি কমিশনার (ভূমি) পরিমল কুমার সরকার জানান, ইসলামী ব্যাংক বাংলাদেশ লিমিটেডের সৈয়দপুর শাখায় কর্মরত করোনায় আক্রান্ত দুই কর্মকর্তার বাড়িসহ আশপশের ৫টি বাড়িতে থাকা ১৩টি পরিবারকে লকডাউন করা হয়। তাদের বাড়ি থেকে বের না হওয়ার এবং ওই বাড়িগুলোতে কাউকে না যাওয়ার জন্য নির্দেশ দেয়া হয়েছে। এদিকে ওই ব্যাংকের কর্মকর্তা ও কর্মচারিদের সংস্পর্ষে আসা মানুষজন ও ব্যাংকে লেনদেন করা অসংখ্য ব্যবসায়ী ও সাধারণ গ্রাহকদের নিজ দায়িত্বে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার জন্য আহবান জানানো হয়েছে প্রশাসনের পক্ষ থেকে। গতকাল শনিবার রাতেই ফেসবুকের মাধ্যমে ওই আহবান জানানো হয়। এতে আতংকিত না হয়ে সকলের উদ্দেশ্যে বলা হয়, নিজে নিরাপদে থাকুন এবং পরিবারের সদস্যদের নিরাপদে রাখুন।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here